ট্রয় নগরী কোথায় অবস্থিত


ট্রয় নগরী কোথায় অবস্থিত এবং অনিন্দ্য সুন্দরী হেলেনের ইতিহাস নিয়ে গবেষকদের কৌতুহলের অভাব নেই। যারা ইতিহাস চর্চায় নিবিষ্ট তাদের কাছে ট্রয় নগরী ধ্বংসের কারণ অন্বেষণ এক গভীর তাৎপর্য বহণ করে।

Table of Contents

সুন্দরী হেলেনকে নিয়ে অনেক পূরা কাহিনীর প্রচলন আছে। বিষয়টি ব্যাপকতা পেয়েছে প্রায় তিন হাজার বছর আগে রচিত বিখ্যাত গ্রীক মহাকবি হোমারের অমর মহাকাব্য ইলিয়াডে। হোমারের আরেকটি মহাকাব্যের নাম ওডেসী। 

ট্রয় নগর
ছবি: কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার দৃষ্টিতে ট্রয় নগরী

  

বিখ্যাত ট্রয় নগরী কোথায় অবস্থিত?

সহজ কথায় বলতে গেলে আজকের তুরস্কে। আন্টালিয়া বা আনাতোলিয়া তুরস্কের অন্যতম প্রধান পর্যটন নগরী। ভূমধ্যসাগরের তীরবর্তী এই শহর প্রাচীনকালেও ছিল রাজা বাদশাদের কাছে অন্যতম কাংখিত স্থান।

ধারণা করা হয়, আধুনিক তুরস্কের উত্তর-পশ্চিম কোণে ‘ট্রোড’ নামে একটি এলাকায় ট্রয় নগরী অবস্থিত হয়ে থাকতে পারে যার কোন অবশিষ্টাংশ নেই। এই এলাকাটি আজকের আন্টালিয়া বা আনাতোলিয়ার অংশ।

উনিশ শতকে স্কটিশ প্রত্নতাত্ত্বিক চার্লস ম্যাক্লারেন এবং ইংরেজ গবেষক ফ্রাঙ্ক ক্যালভার্ট প্রাচীন ট্রয়ের স্থানের সাথে প্রাচীন ধ্বংসাবশেষ সম্বলিত একটি পাহাড়কে প্রথম সংযুক্ত করেছিলেন। 

তবে বিষয়টি পূর্ণতা লাভ করে শৌখিন জার্মান প্রত্নতাত্ত্বিক হেনরিখ শ্লিম্যান শহরটি উন্মোচন এবং ইলিয়াডকে সত্যের উপর ভিত্তি করে প্রমাণ করার উদ্দেশ্যে আনাতোলিয়ায় ভ্রমণ করেছিলেন। তখন থেকেই, শ্লিম্যান যে স্থানটিকে ‘ট্রয়’ বলে দাবি করেছিলেন সেটি ব্যাপক খনন ও গবেষণার বিষয় হয়ে উঠেছে।

ট্রয় শহর যেখান থেকে শুরু

আধুনিক তুরস্কের উত্তর-পশ্চিম কোণে অবস্থিত ট্রয়ের স্থানটি প্রথম ব্রোঞ্জ বা তাম্র যুগে প্রায় 3000 খ্রিস্টপূর্বাব্দে জনবসতিতে পরিণত হয়েছিল। তুরস্কের স্থানীয় ভাষায় এই এলাকাটি ট্রোভ নামে পরিচিত। এর অধিবাসীদের বলা হত ট্রোজান।

 শহর হিসাবে গোড়াপত্তনের চার হাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে অগণিত প্রজন্ম ট্রয়-এ বসবাস করেছে। নিজেদের সমৃদ্ধির লক্ষ্যে ট্রোজানদের জন্য জীবনযুদ্ধ সবসময় সহজ ছিল না। তাদের বাড়িঘর এবং দুর্গগুলি আগুন, ভূমিকম্প বা যুদ্ধে বিধ্বস্থ হয়েছিল এবং নতুন করে নির্মিত হয়েছিল। ট্রয় শহরটি কখনও বেড়েছে, কখনও কখনও সংকুচিত হয়েছে এর জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনের সাথে সাথে।

ট্রয় শহর
ছবি: কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার দৃষ্টিতে বানিজ্যিক ট্রয় নগরী

ধারণা করা হয়, প্রাচীন ট্রোজানদের পানিপথে বাণিজ্যের জন্য অন্যতম সেরা নগরী ছিল ট্রয়।

এই নগরী ব্যবসা বাণিজ্যের কেন্দ্রভূমি হয়ে ওঠার কারণ ছিল সমুদ্র তীরের অতি নিকটেই এর অবস্থানস্থল। 

আরও পড়ুন:

ট্রয় নগরী ধ্বংসের কারণ যা আজও বিস্ময়কর

নাগাল্যান্ড আজও নিজস্ব সংস্কৃতিতে সমুজ্জ্বল

বরফ ঢাকা দুর্গম পথ হয়ে নুব্রা উপত্যকায়

ট্রয় নগরীর বর্তমান নাম

ট্রয় নগরী কোথায় অবস্থিত জানলেও এর বর্তমান নাম হয়তো অনেকেই জানেন না। ঐতিহাসিক ট্রয় নগরীর বর্তমান নাম হিসারলিক। সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দারা অবশ্য ট্রয় সম্বন্ধে কিছু বললে সেটা বুঝবেন। যদিও স্থানীয়ভাবে তাদের ট্রোজান নামে ডাকা হয়।

ট্রয় কানাক্কালে থেকে প্রায় 19 মাইল এবং এজিয়ান সাগর থেকে প্রায় 4 মাইল দূরে অবস্থিত। এর কাছেই অবস্থিত দারদানেলস। যারা এথেন্সের অ্যাক্রোপলিস কিংবা জেরুজালেমের চিত্তাকর্ষক ধ্বংসাবশেষ সম্পর্কে ধারণা রাখেন তাদের কাছে অবশ্য ট্রয় নগরীর বর্তমান দশা কিছুটা ম্লান মনে হবে।

যদিও এখানে খননের পর প্রচুর ধ্বংসাবশেষ এবং স্তরের সন্ধান পাওয়া গেছে যা চিত্তাকর্ষক।

তবে ট্রয় নগরী ঘুরে দেখার গুরুত্ব হল এর ঐতিহাসিক তাৎপর্যের জন্য। বর্তমানে ট্রয় নগরীতে একটি উঁচু স্থান আছে। সেখান থেকে সমুদ্রের দিকে তাকালে সামনে প্রসারিত উপকূলীয় সমভূমির একটি দুর্দান্ত দৃশ্য দেখা যায়।

ট্রয় কানাক্কালে থেকে প্রায় 19 মাইল এবং এজিয়ান সাগর থেকে প্রায় 4 মাইল দূরে অবস্থিত। এর কাছেই অবস্থিত দারদানেলস। যারা এথেন্সের অ্যাক্রোপলিস কিংবা জেরুজালেমের চিত্তাকর্ষক ধ্বংসাবশেষ সম্পর্কে ধারণা রাখেন তাদের কাছে অবশ্য ট্রয় নগরীর বর্তমান দশা কিছুটা ম্লান মনে হবে।

ট্রয় নগরী কোথায় অবস্থিত এই তথ্য জেনে রাখাটা অনুসন্ধিৎসু পাঠকের কাছে যেমন অগ্রাধিকার পায় তেমন শিক্ষার্থীদের কাছেও প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রস্তুতিতে কাজে লাগে। আর সবচেয়ে বিস্ময়কর ব্যাপার হল সুন্দরী হেলেনের কারণে ট্রয় নগরী ধংসপ্রাপ্ত হয়েছিল সে তথ্য পুরো মানবজাতির কাছেই এক চির রহস্যময় ব্যাপার।